শুধু ইউটিউব ভিডিও দেখে রোজগার করা যাবে মাসে ৩০ হাজার টাকা

dollarঅনেকেরই ধারণা, এলোমেলো নেট সার্ফিং কেবল অবসর সময় কাটানোর উপায় মাত্র। কিন্তু জানেন কি? ইন্টারনেটে সময় কাটানো আপনার কাছে বেশ মোটা রোজগারের রাস্তা হয়ে উঠতে পারে?

আপনার ফোনে বা পিসিতে  যদি ইন্টারনেট ডেটার অভাব না থাকে, আর ইউটিউবে ভিডিও দেখার কাজটা যদি আপনার খারাপ না লাগে, তাহলেই আপনি ইন্টারনেট সার্ফিং-এর মাধ্যমে রোজগার করতে পারবেন।

ব্যাপারটা যতই অবিশ্বাস্য মনে হোক না কেন, ঘটনাটা সত্য। নেট জগতে বেশ কিছু ইউটিউব চ্যানেলের ওয়েবসাইট রয়েছে যে সাইটগুলিতে গিয়ে আপনি ভিডিও দেখলে আপনাকে টাকা দেবে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। রোজগারের পরিমাণ আরও বাড়বে যদি আপনি ভিডিওর নীচে কোনও কমেন্ট বা সাজেশন রাখতে পারেন। অন্য বন্ধুবান্ধবদের যদি রেফার করতে পারেন সাইটটি তাহলেও পাবেন অতিরিক্ত কমিশন।

প্রশ্ন হল, কোন কোন ওয়েবসাইট মারফৎ টাকা রোজগার সম্ভব? অনেকগুলি ওয়েবসাইটই রয়েছে। তাদের মধ্যে কয়েকটি হল, পেড টু ইউটিউব (paid2youtube), সোয়্যাগবাকস (swagbucks), ইউ-কিউবজ (you-cubez), সাকসেসবাকস্ (Successbux), স্লাইডজয় (Slidejoy) ইত্যাদি। এগুলির প্রত্যেকটিই আদপে পিটিসি (পেইড টু ক্লিক) সাইট। এই সাইটগুলিতে বিজ্ঞাপনদাতারা প্রচুর বিজ্ঞাপন দেবেন আপনার ভিডিওর ফাঁকে ফাঁকে। আপনাকে সেগুলিতে ক্লিক করতে হবে। তা থেকেই পে প্যাল-এর মতো ভারচুয়াল ওয়ালেটের মাধ্যমে আপনার অ্যাকাউন্টে টাকা চলে যাবে।

এক একটি সাইটের কার্যপদ্ধতি এক এক রকমের। যেমন ধরুন, স্লাইডজয় থেকে যদি আপনি রোজগার করতে চান তাহলে স্রেফ এর অ্যাপটি আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে ইনস্টল করে নিন। আপনার ফোনটি যখনই লকড হয়ে যায়, তখনই এই অ্যাপ আপনার ফোনে ক্রমাগত বিজ্ঞাপন প্লে করতে থাকে। আবার যখনই ফোনটি আনলক করবেন তখনই বিজ্ঞাপন চলা বন্ধ হয়ে যাবে। ঘন্টা প্রতি এই পদ্ধতিতে ৩৩ টাকা রোজগার করা সম্ভব।

অর্থনীতি বিশেষজ্ঞদের হিসেব অনুযায়ী, পিটিসি-গুলি থেকে মাসে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত রোজগার করা সম্ভব। তাহলে আর দেরি কীসের? বসে পড়ুন ভিডিও দেখতে, আর প্রশস্ত করুন আপনার রোজগারের রাস্তা। সুত্র: এবেলা

SHARE