মাদকমুক্ত কৈমারী গড়ার লক্ষ্যে প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত

মাদক এখন সামাজিক ক্যান্সারে পরিণত হয়েছে। মাদক সমাজকে এমনভাবে গ্রাস করেছে যে সেখান থেকে বেরিয়ে আসা আমাদের জন্য দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। মাদক আগ্রাসনে যুবসমাজকে কোন পথে নিয়ে যাচ্ছে সে প্রশ্ন এখন জনমনে। মাদকের কুপ্রভাব যেভাবে বিস্তৃত হয়ে পড়ছে তাতে উদ্বিগ্ন না হয়ে পারা যায় না। এর ভয়াল আগ্রাসন দেশের যুবসমাজকে সর্বনাশের পথে নিয়ে যাচ্ছে। তাই মাদকমুক্ত কৈমারী গড়ার লক্ষ্যে কৈমারী জাতীয় ক্রিকেট টিম এবারের ঈদে আয়োজন করে প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট । উক্ত টুর্নামেন্টে উদ্বোধন করেন কৈমারী স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক শিক্ষক ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কৈমারী ইউনিয়ন সভাপতি সাইদার রহমান মাস্টার, কৈমারী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কহিনুজ্জামান লিটন, বাংলাদেশ আওয়ামী যুব লীগের জলঢাকা উপজেলা যুগ্ম আহ্বায়ক মকছুদার রহমান লেলিন, রণচণ্ডী স্কুল এন্ড কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক রশিদুল ইসলাম ও কৈমারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রেজাউল হক প্রমুখ । উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন কৈমারী ইউনিয়ন বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন থানার সীমানা এলাকা হওয়ায় অবাধে অত্র এলাকায় মাদকের কালো থাবা বিস্তার করছে । সীমানাবহুল এলাকায় একটি পুলিশ ফাঁড়ীর ফাইল জায়গার অভাবে মন্ত্রণালয়ে আটকে রয়েছে। কৈমারীর তরুণ ও যুব সমাজ মাদকের বিরুদ্ধে জনসচেতনার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা প্রশংসনীয় । আজকের তরুন সমাজ মাদকের বিরুদ্ধে যদি জেগে উঠে তাহলে মাদকমুক্ত কৈমারী গড়া সময়ের ব্যাপার ।

উদ্বোধনী সভা শেষে কৈমারী সুপার ঈগল, ট্রিপল আর ও তিস্তা সুপার কিংস এর মধ্যে তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় । সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়ে  তিস্তা সুপার কিংস ও  কৈমারী সুপার ঈগল ফাইনাল ম্যাচ খেলে । ফাইনাল ম্যাচে তিস্তা সুপার কিংস ১০ ওভারে ৫৭ রান সংগ্রহ করে জবাবে কৈমারী সুপার ঈগল শেষ বলে ১ উইকেট হাতে নিয়ে নাটকীয় জয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় । ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণ করেন কৈমারী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কহিনুজ্জামান লিটন ও টুর্নামেন্টের আয়োজক রেজাউল হক রিজু । খেলায় ম্যান অফ দ্যা সিরিজের পুরষ্কার জিতে নেন  শরিফুল ইসলাম, সর্বোচ্চ রানের পুরষ্কার জিতে নেন আরিফ হোসেন , শ্রেষ্ট বোলিং এর পুরষ্কার জিতে নেন রুপম । খেলায় আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেন ইয়াসির আরাফাত ও মুস্তাফিজুর রহমান মানু ।

SHARE