শাকিবের শুটিংয়ে বাধা নেই : হাইকোর্ট

বিনোদন ডেস্ক:  ঢালিউডে ‘বয়কট’ হলেও গেল কয়েক মাস কিং খান কলকাতার ছবি নিয়ে বিদেশে ব্যস্ত সময় পার করেছেন। শংকা ছিল দেশের ছবির শুটিং-সিডিউল নিয়ে। তবে ঢাকাই ছবিতেও শাকিব খানের শুটিংয়ে বাধা নেই, বিশেষ করে তিনটি চলচ্চিত্রে। এক রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ রবিবার (২৩ জুলাই) এমনই আদেশ দেন।

গত ২৩ জুন থেকে ‘চলচ্চিত্র পরিবার’ ঘোষণা দিয়ে রেখেছে দেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানকে বয়কটের। এমনকি শিল্পী সমিতি থেকে তার সদস্যপদ বাতিলেরও কথা জানিয়েছেন নেতারা।
মূলত এমন ঘোষণার পর গেল এক মাসে এ নিয়ে আর কোনও উন্নতি-অবনতির খবর পাওয়া যায়নি। যদিও এ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অনেক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, যারা শাকিব খানের আগাম সিডিউল কিনে রেখেছেন। তেমনই একটি প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। এই ব্যানার থেকে শাকিব খান তিনটি ছবি করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে। যার শুটিং শুরুর কথা ২৫ জুলাই থেকে। কিন্তু চলচ্চিত্র পরিবারের ‘বয়কট’ ঘোষণার পর শাকিবকে নিয়ে শুটিং করা সম্ভব নয় বলে মনে করছে প্রযোজনা সংস্থাটি। সে ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটি মোটা দাগের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবে। এমন দাবি এবং এর সুরাহা করার লক্ষ্যে ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন শাপলা মিডিয়ার পক্ষে।
সেই সূত্রে রবিবার বেলা ১২টা নাগাদ বিচারপতি সালমান মাসুদ চৌধুরী এবং বিচারপতি একে এম জহিরুল হকের বেঞ্চ এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের তিন ছবিতে শাকিব খানের শুটিংয়ে কোনও বাধা নেই বলে আদেশ দেন।
তিনটি ছবি হলো ‘আমি নেতা হবো’, ‘মামলা হামলা ঝামেলা’ এবং ‘কেউ কথা রাখে না’।
প্রসঙ্গত, চলচ্চিত্র ঐক্যজোটে শামিল ১৮টি সংগঠনের ‘চলচ্চিত্র পরিবার’ শাকিব খানকে বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয়। আর শিল্পী সমিতিতে থাকায় সমিতি তার সদস্যপদ বাতিল করার বিষয়টি চূড়ান্ত করে। নীতিগত এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ২৩ জুন, যা এখনও বলবৎ রয়েছে।
রাজপথে নেমে তুমুল আন্দোলনের পরেও সমালোচিত যৌথ প্রযোজনার দুই ছবি ‘নবাব’ ও ‘বস-টু’ আনকাট সেন্সর ও মুক্তি পায় গেল ঈদে। দুটি ছবি মুক্তির পক্ষে শাকিব খান কাজ করেছেন। আর এই অভিযোগে ‘চলচ্চিত্র পরিবার’ শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয়।

SHARE