স্বপ্নলোকের চাবি-৩

পৃথিবীতে তখন জ্ঞান মানে শুধু প্রকৃতির জ্ঞান – চাঁদ, সূর্য, গ্রহ, তারা, নদীর স্রোত এসব দেখে দেখে অনুমান করাই ছিলো জ্ঞান। সেসময় এথেন্সের এক বুড়ো – সক্রেটিস সাহেব বললেন, নিজেকে জানো – Know Thyself. সারা পৃথিবীর মানুষ তাজ্জব হয়ে গেলো – আমাকে জানব? আমার মধ্যে কি আছে? আমি এমন কি যে আমাকে জানতে হবে? ধীরে ধীরে মানুষ বুঝলো – হ্যাঁ, সক্রেটিসই সঠিক। মানুষই পৃথিবীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। পৃথিবীর সকল জ্ঞান, বিজ্ঞান, রাষ্ট্র, সমাজ, ধর্ম সব কিছু মানুষের জন্য। মানুষই সকল ক্ষমতার উৎস। তাঁকে ঘিরেই সবকিছু।
.
সেই সক্রেটিসের মুখে মাইক রেখে বলছি – নিজেকে জানুন। পৃথিবীর সবচেয়ে ক্ষমতাবান আপনি নিজে। আপনার মাঝেই সকল সম্ভাবনা আছে। বিশ্বাস করুন – আপনি চাইলেই পৃথিবীকে আপনার মত করে তৈরি করে নিতে পারেন। আপনার ইচ্ছাশক্তিই আপনার পৃথিবীকে আপনার মনের মত করে ফেলবে। এখন আপনি সিদ্ধান্ত নিন – আপনি কিভাবে নিজেকে গড়বেন? আপনি অন্যের পেছনে ছুটবেন, নাকি পৃথিবী আপনার পেছনে ছুটবে? আপনি কি ভীড়ের মানুষ হবেন, নাকি আপনাকে ঘিরেই ভিড় তৈরি হবে?

লেখক// সুজন দেবনাথ (অব্যয় অনিন্দ্য),  ফার্স্ট সেক্রেটারি, বাংলাদেশ দূতাবাস, এথেন্স