21.9 C
jessore, bd
Tuesday, November 21, 2017
কবিতা

কবিতা

কবিতা

চৌধুরী ফাহাদ এর কবিতা

ভ্রম ভ্রমণ ছায়ার পাশেই কায়া বসে ছায়া হয়ে হামাগুড়ি নিঃশ্বাস ফেলে বিপন্ন জীবনের আত্মপ্রতিকৃতি! দরজার ওপাশে ঘেউ করে উঠলে কুকুর তাড়িয়ে ফিরে আসে মানুষের মুখ পর্দার ওপারে অন্যশোক- তাড়িয়ে ফেরা মানুষের স্বরূপ দর্পণের ঘেউ চিৎকার থামানোর চোখে নিজেরই...

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সাহিত্যে পাঁচ কবির কবিতা

ও দু দ  ম ণ্ড ল বিষাদের ছায়া পড়ে জোছনার গায়ে বিবেকের গ্যাঁড়াকলে হাসিমাখা ফুল, নিয়তির জাঁতাকলে হারা জাত-কূল ৷ আঁকাবাঁকা আলপথ হতাশার নিশা, ঘনমেঘে ঢেকে যায় আকাশের দিশা ৷ প্রলেপিত মশলায় সুখদার কায়া, অবিরাম বিকিকিনি নিশীথের মায়া...

কবি সাইদ হাফিজের দুইটি কবিতা

মৃত সংস্করণ   মরা ফুলের মর্মান্তিক সৌরভের মতো মৃত্যুকে পাশ কাটিয়ে বেঁচে থাকা - মৃত্যুর চেয়েও কি ঢের মধুর? কুড়িয়ে পাওয়া সৌরভ আর বুড়িয়ে যাওয়া ফুল বড় বেশি হালকা, বাতাসের বিপরীতে ওড়ে চুল আমি, তুমি, আমরা সবাই- কাঁচের ফুল...

পটুয়াখালী সাহিত্য-আয়োজনে তিন কবির কবিতা

অলৌকিক ঝড় আনোয়ার হোসেন বাদল সব কিছু ঠিকঠাক ছিলো, একদম স্বাভাবিক আচমকা মিশরের পীরামিড ভেঙ্গে উড়ে এলো অভিশপ্ত ফেরাউন, তার ফুৎকারে ভেসে গেলো নজরুলের প্রথাবিরোধী চুল, বিদ্রোহী কবিতা  সহস্র টুকরো হয়ে আকাশে মিলিয়ে গেলো রবীন্দ্রনাথ আর লালনের মানবিক...

আ নি ফ রু বে দ এ র দ শ টি...

পৃথিবী আর আমার সন্তানেরা আমার সন্তানেরা বড় হচ্ছে হুটোপুটি লুটোপুটি করে। এমন চঞ্চল আর এমন ঝগড়াটে আমি আর দেখিনি কোথাও। একদিন একটা ভূগোলক কিনে আনলাম বাসায়। আমার হাতে ভূগোলক দেখে তারা জিজ্ঞাসা...

খুব নতুনের তিনটি লেখা : কুড়িগ্রাম

না সি ম  ন বা ন্ন পাই যেন মেম   দেখিলাম তারে, দেখিলাম তারে অপলক দৃষ্টিতে আমি বারে বারে স্বরণ রেখেছি,খবর লয়েছি দূরে যেতে ধরে, কাছেতে এসেছি এসেছি যখন, দেখেছি যখন টানে কাছে পেতে ভেবেছি যখন পাব আমি তারে, বলি...

কুড়িগ্রামের তিন কবির কবিতা

ফারুক ফরায়েজি স্বপ্নেরা বিভোর কান্নায়   ছানিপড়া চোখে অন্তহীন আকাশ দেখি বিস্তৃত মনে নিষ্কৃতি পায়নি কালো মেঘ সময়ের বেড়িবাঁধে হারিয়েছি জীবনের বেগ। নব্যসম্প্রদায় ভেসে যায়, কালের বেগতিক ছলনায় তারণ্যের দৈব্য শক্তি হারিয়েছে অ্যালকোহোলের বুদবুদ ফনায় তরুণ-তরণীরা ঘুমহীন চোখেও দেখতে পারেনি...

কবি সাঈফ ফাতেউর রহমানের দুইটি কবিতা

জানাও আকাঙ্খা তোমার চাইলেই আকাশ থেকে অঝোর বৃষ্টি নামাতে পারি, চাইলেই মাঘি পূর্ণিমার আলোর জোয়ারে ভাসাতে পারি চাইলেই হেমন্তের কুয়াশায় নবান্নের ঘ্রাণে ভরা আঙ্গিনা আনতে পারি চাইলেই নিশ্চিত শরতের কাশফুলে সাজিয়ে দিতে পারি সকল নদীতীর। অনেক...

কবি মতিয়ার রহমান’র পুঁথি : হামার কুড়িগ্রাম-১

শোনেন বাহে জ্ঞানী-গুণী আচেন যত জন হামার জেলা কুড়িগ্রামের কথা করিব বর্ণন। ছাব্বিশ এপ্রিল আঠার শো পঁচাত্তর সালে কুড়িগ্রাম মহুকুমা হইল ব্রিটিশের কালে। এক ফেব্রুয়ারি উনিশ শো চুরাশিতে ভাই কুড়িগ্রাম হইল জেলা ইতিহাসে পাই। ভারতের পশ্চিম বঙ্গ-এই...

আমি কিরকম ভাবে বেঁচে আছি – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

আমি কীরকম ভাবে বেঁচে আছি তুই এসে দেখে যা নিখিলেশ এই কী মানুষজন্ম? নাকি শেষ পরোহিত-কঙ্কালের পাশা খেলা! প্রতি সন্ধ্যেবেলা আমার বুকের মধ্যে হাওয়া ঘুরে ওঠে, হৃদয়কে অবহেলা করে রক্ত; আমি মানুষের পায়ের কাছে কুকুর...